উত্তর সিটিতে টিম লিডার তোফায়েল, দক্ষিণে আমু

উত্তর সিটিতে টিম লিডার তোফায়েল, দক্ষিণে আমু

ঢাকা: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েল আহমেদ ও ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে (ডিএসসিসি) উপদেষ্টা পরিষদের আরেক সদস্য আমির হোসেন আমুকে টিম লিডারের দায়িত্ব দিয়ে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি অনুমোদন করেছে আওয়ামী লীগ। আগামী ৩০ জানুয়ারি এই দুই সিটির নির্বাচন সামনে রেখে নির্বাচন কার্যক্রম পরিচালনায় নেতৃত্ব দেবেন দলের বর্ষীয়ান এই দুই নেতা।

শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ ও উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যদের নিয়ে অনুষ্ঠিত এক যৌথসভায় এই দুই কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

বৈঠক সূত্র  জানিয়েছে, ডিএনসিসি নির্বাচন পরিচালনা কমিটিতে সদস্য সচিব থাকছেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি এবং ডিএসসিসির কমিটিতে সদস্য সচিব থাকছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির।

দলীয় সূত্র জানায়, ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকার প্রার্থী ও কাউন্সিলর পদে দল সমর্থিত প্রার্থীদের বিজয় নিশ্চিত করতে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সংখ্যা এখনো চূড়ান্ত করা হয়নি। কেন্দ্রীয় কমিটি ও উপদেষ্টা পরিষদের যারা যারা কাজ করতে আগ্রহী, তাদের অন্তর্ভুক্ত করা হবে কমিটিতে। আজকের মধ্যে কমিটি চূড়ান্ত করে আগামীকাল শনিবার (৪ জানুয়ারি) গণভবনে অনুষ্ঠিত যৌথসভায় উপস্থাপন করা হবে। কমিটিতে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের সভাপতি সদস্য হিসাবে অন্তর্ভুক্ত থাকবেন।
বিজ্ঞাপন

যৌথ সভায় দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে দলের বর্ষীয়ান নেতা উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য সাবেক শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুকে টিম লিডার হিসাবে মনোনীত করা হয়েছে। এই কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত আছেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আব্দুর রাজ্জাক, অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আব্দুর রহমান এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম। বাকিদের নাম দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে আজকে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে অনির্ধারিত বৈঠকে চূড়ান্ত করা হবে।

অন্যদিকে, ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে দলের উপদেষ্টা পরিষদের আরেক সদস্য ও সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদকে টিম লিডার হিসাবে মনোনীত করা হয়েছে। এই টিমে আরও অন্তর্ভুক্ত আছেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ ও ডা. দীপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিলসহ অন্যান্যরা।

এর আগে, যৌথসভার শুরুতে সূচনা বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। ২১তম জাতীয় সম্মেলনের পর নবনির্বাচিত কমিটি প্রথম যৌথসভা এটি। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে যৌথসভায় দলটির কার্যনির্বাহী সংসদ ও উপদেষ্টা পরিষদের প্রায় সব সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া গণমাধ্যমকে জানান, প্রথম এই যৌথসভাটি দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে উৎসর্গকে করেন দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা। এছাড়াও সভায় এক মিনিট দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করা হয় এবং শোক প্রস্তাব গৃহীত হয়। এরপর শনিবার (৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সভা মুলতবি ঘোষণা করা হয়। শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এই সভা ফের শুরু হবে।

এর আগে, ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে তিন দিনে আওয়ামী লীগ থেকে মেয়র পদে মনোনয়নের জন্য আবেদন পত্র সংগ্রহ করে ২০ জন। রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা ফরম সংগ্রহ করেন, একই কার্যালয়ে জমাও দেন। গত শনিবার (২৮ ডিসেম্বর) গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় মেয়র পদে নৌকার প্রার্থী হিসাবে উত্তর সিটিতে আতিকুল ইসলাম ও দক্ষিণ সিটিতে ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে নূর তাপসকে মনোনয়ন দেওয়া হয়।

পরদিন ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের মেয়র পদে দলীয় প্রার্থীদের নাম এবং কাউন্সিলর পদে দল সমর্থিত প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন।

উল্লেখ্য, ঢাকা উত্তর সিটিতে সাধারণ ওয়ার্ড ৫৪টি, সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ড ১৮টি। অন্যদিকে ঢাকা দক্ষিণে সাধারণ ওয়ার্ড ৭৫টি, সংরক্ষিত ওয়ার্ড ২৫টি। গত ২২ জানুয়ারি নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ৩০ জানুয়ারি দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে সব কেন্দ্রে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)।

আপনার মতামত লিখুন :
error0



এই বিভাগের আরো খবর